মাদকের চাষাবাদ, উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, বহন, পরিবহন, স্থানান্তর, আমদানি, রপ্তানি, সরবরাহ, বিপণন, ক্রয়-বিক্রয়, হস্তান্তর, অর্পণ, গ্রহণ, প্রেরণ, লেনদেন, নিলামকরণ, ধারণ, গুদামজাতকরণ, প্রদর্শন, সেবন, প্রয়োগ, ব্যবহারকে এ আইনে অপরাধ গণ্য করা হবে। আইনে মাদকাসক্তের সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, শারীরিক বা মানসিকভাবে মাদকদ্রব্যের উপর নির্ভরশীল ব্যক্তি অভ্যাসবশে মাদকদ্রব্য গ্রহণ বা সেবনকারী ব্যক্তি

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বিল ২০১৮- ঈয়াবা ব্যাবসায়িদের জন্য মৃত্যুদণ্ড ও সেবনকারীদের জন্য শাস্তি ।

গত ২৭ অক্টোবর , বাংলাদেশ সংসদের ২৩ তম অধিবেশনে পাশ হয় বহুল আলোচিত মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বিল-২০১৮  । বিলটি কণ্ঠভোটে পাস হয়। তবে বিলটির ওপর বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (এ) সংসদ সদস্যদের আনীত জনমত যাচাই-বাছাই ও সংশোধনী প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।ইয়াবার আগ্রাসন ভয়াবহরূপে বেড়েছে। কর্মক্ষম যুব সমাজের বড় একটি অংশ ইয়াবা নামক মরণ নেশায় আসক্ত হয়ে […]

Continue Reading