র‌্যাবের অভিযানে কক্সবাজার এলাকার গভীর সমুদ্র হতে ০৩ লক্ষ পিছ ইয়াবাসহ ০৭ জন গ্রেফতার

খবর
১।       দেশের যুব সমাজ তথা নতুন প্রজন্ম’কে মাদকের নীল দংশন হতে পরিত্রান এবং সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিসত্মার রোধকল্পে মাদক বিরোধী অভিযানে অন্যান্য আইন শৃঙ্খলা রÿাকারী বাহিনীর পাশাপাশি র‌্যাবও কঠোর অবস্থান নিয়ে আসছে এবং নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। সন্ত্রাস, চরমপন্থী ও ধর্মীয় জঙ্গিবাদ নির্মূলের পাশাপাশি মাদক বিরোধী অভিযানে র‌্যাব বলিষ্ঠ পদÿÿপ রেখে চলেছে। গোয়েন্দা ও নিয়মিত আভিযানিক কার্যক্রমের মাধ্যমে মাদকের চোরাচালান, চোরাকারবারী, চোরাচালানের রম্নট, মাদকস্পট, মাদকদ্রব্য মজুদকারী ও বাজারজাতকারীদের চিহ্নিত করে তাদের গ্রেফতারসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। ২০০৭ সালে র‌্যাবের অভিযানেই আবিস্কৃত হয় ভয়াল নেশা দ্রব্য ‘ইয়াবা’ যা সমাজকে আলোড়িত ও উদ্বিগ্ন করেছিল। দÿÿণ এশিয়ার দেশগুলোতে এটি ‘ক্রেজি ড্রাগ’ নামে পরিচিত। সাম্প্রতিক সময়ে চাঞ্চল্যকর কিছু ঘটনার মূল কারণ হিসাবে মাদককে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর ফলশ্রম্নতিতে র‌্যাব সারাদেশ ব্যাপী মাদকের বিরম্নদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরম্ন করেছে এবং এই অভিযানে র‌্যাব পূর্বের তুলনায় কয়েকগুন বেশী হারে মাদক উদ্ধার করতে সÿম হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোয়েন্দা অনুসন্ধানের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কতিপয় সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী চক্র দীর্ঘদিন ধরে মায়ানমার থেকে ইয়াবার বড় বড় চালান মাছ ধরার ট্রলার যোগে কক্সবাজার এবং চট্টগ্রাম নিয়ে আসে। তাদেরকে নীবিড় পর্যবেক্ষণের ফলশ্রম্নতিতে জানা যায় যে, ‘‘এফভি রাফসান’’ নামক একটি মাছ ধরার ট্রলার যোগে বিপুল পরিমান ইয়াবার চালান মায়ানমার হতে কক্সবাজারের দিকে আসছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে অদ্য ১৪ মার্চ ২০১৬ তারিখ আনুমানিক ১৪০০ ঘটিকার সময় র‌্যাব-৭ এর একটি চৌকস আভিযানিক দল কক্সবাজার এলাকার গভীর সমুদ্রে তাড়া করে ‘‘এফভি রাফসান’’ নামীয় ফিশিং ট্রলারটিকে (১) মোঃ আলম @ চলনদার (৪২), পিতা- মোঃ আবুল কাশেম, সাং- চনুয়া, থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রাম, (২) নাছির উদ্দিন (৪৪), পিতা- নুরুল আলম, সাং- চনুয়া, থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রাম, (৩) মোঃ জসিম (২২), পিতা- মোঃ মফিজ, সাং- চনুয়া, থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রাম, (৪) মোঃ কামাল (২৬) পিতা- মঞ্জুর আলম, সাং- শেখেরখালী,  থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রাম, (৫) মোঃ কলিম উল্যাহ (২৪) পিতা- সাইফুল হক, সাং- চনুয়া, থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রাম, (৬) মোঃ আশরাফ উদ্দিন (১৬) পিতা- ফরিদ আহমেদ, সাং- চনুয়া, থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রাম এবং (৭) মোঃ হোসেন (২৫)  পিতা- সুফি আলম, সাং- চনুয়া, থানা- বাঁশখালী, জেলা- চট্টগ্রামদেরকে ০৩ লক্ষ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *