৩৬১টি কন্টেইনারের পণ্য নিলামে উঠছে ৩০ জুন

৩৬১টি কন্টেইনারের পণ্য নিলামে উঠছে ৩০ জুন

চট্টগ্রাম বন্দর কাস্টমস কতৃপক্ষ ৩৬১টি কনন্টেইনারের পণ্য নিলামে-বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
চট্টগ্রাম বন্দরে আটকে পড়া এসব কন্টেইনারের পণ্য নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বন্দর থেকে ছাড়িয়ে না নেওয়ার কারণেই কাস্টমস্ কতৃপক্ষ এ নিলামের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। আগামী ৩০ জুন চট্টগ্রাম বন্দর ইয়ার্ডে দিনব্যাপী এ নিলাম অনুষ্ঠিত হবে।
বন্দর কাস্টমস্ সূত্রে জানা গেছে,৩৬১টি কন্টেইনার-পণ্যের এ নিলাম হবে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় নিলাম। সূত্রমতে এসব কন্টেইনারে গাড়ি,হিমায়িত খাদ্য, ফল ও মাছসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্য রয়েছে।
বন্দর কাস্টমস কতৃপক্ষের উদ্যোগে নিলামে অংশ নিতে আগ্রহী-ক্রেতাদের আকর্ষণের জন্য বুধবার থেকে নিলামযোগ্য পণ্যের উন্মুক্ত-প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করে। তিন দিনব্যাপি এ প্রদর্শনী আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় শেষ হয়।
চট্টগ্রাম কাস্টমস’র নিলাম শাখার ডেপুটি কমিশনার ফরিদ আল মামুন নিলামের তথ্য নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন,‘বিভিন্ন কারণে বন্দরে আটকে থাকা এবং নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পণ্য ছাড় না করায় ৩৬১টি কন্টেইনারের পণ্য আগামী ৩০ জুন উন্মুক্ত বিক্রি করা হবে। মোট ১৭৪টি লটে পণ্য নিলামে তোলা হবে। এর মধ্যে রযেছে ৪টি বিলাসবহুল গাড়ি, ১৫০ টন পিঁয়াজ,১৭৪ টন মহিষের মাংস, ২৪ কন্টেইনার আপেল, ৭২৯ টন বিভিন্ন ধরনের পশু-খাদ্য, ৪০ কন্টেইনার-বোঝাই গার্মেন্টস পণ্য,৯ টন মাছ।’এছাড়া, ৮ কন্টেইনার আর্ট পেপার এবং ২৮ কন্টেইনার বিভিন্ন ধরনের মেশিনারিজ পণ্য রয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
ফরিদ আল মামুন জানান,আগামী ৩০ জুন সকাল থেকে এসব পণ্যের নিলাম শুরু হবে। দুপুর পর্যন্ত দরদাতারা নির্দিষ্ট শিডিউলে নিজেদের ঐচ্ছিক দর জানিয়ে ফরম জমা দিতে পারবেন। একই দিন বিকেলে উপযুক্ত দরদাতা নির্ধারণ করে তাদের কাছে এসব পণ্য ছাড় এবং হস্তান্তর করবে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।
করোনা-ভাইরাসের (কভিড-১৯) কারণে গত তিন মাস ধরে কাস্টমস’র নিলাম বন্ধ ছিলো।