.

বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরে টিকে গ্রুপ ২০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে

ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর,২০২০ (বাসস) : চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরে কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রি, ভোগ্য পণ্য ও খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প কারখানা স্থাপন করবে টিকে গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সামুদা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড। এখানে তারা ৬০ একর জমিতে ২০ কোটি ৫২ লাখ মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে।
এ লক্ষে সোমবার বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) ও সামুদা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের মধ্যে একটি ইজারা চুক্তি সই হয়েছে। বেজার নির্বাহী সদস্য মো. আব্দুল মান্নান ও সামুদা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মোস্তফা হায়দার নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে সাক্ষর করেন।
এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরে বড় বিনিয়োগ নিয়ে আসার জন্য টিকে গ্রুপকে ধন্যবাদ জানান। বেজার সহায়তায় তারা দ্রুততম সময়ে শিল্প স্থাপন শুরু করতে পারবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
তিনি বলেন,বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরে বিনিয়োগ উপযোগি সব ধরনের অবকাঠামো ইতোমধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে। এর পাশাপাশি খাত ভিত্তিক প্রয়োজনীয় দক্ষ জন শক্তি গড়ে তোলার লক্ষ্যে বেজা বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কর্মসূচির ব্যবস্থা করেছে বলে তিনি জানান।
সামুদা ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের বিনিয়োগ প্রস্তাব থেকে জানা যায়, ৬০ একর জমিতে ২০ কোটি ৫২ লাখ ডলার বিনিয়োগের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রি, ভোগ্য পণ্য ও খাদ্য প্রক্রিয়াকরণের যে কারখানা করবে সেখানে ২ হাজার নতুন কর্মসংস্থান তৈরি হবে। প্রস্তাবিত কারখানায় তিনটি ইউনিট থাকবে যেমন-এডিবল রিফাইনারি, কস্টিক সোডা ইউনিট এবং সিড ক্রাসিং ইউনিট। এডিবল রিফাইনারি অংশে বিভিন্ন ভোগ্য পণ্য,কস্টিক সোডা অংশে র সল্ট, ক্লোরিন ইউনিট ইত্যাদি থাকবে। অপরদিকে সয়াবিন জাতীয় পণ্য সিড ক্রাশিং ইউনিটে প্রস্তুত হবে।
উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে টি কে গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেড বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরে ২০ একর জমি ইজারা নিয়েছে। সেখানে শিল্প স্থাপনের কাজও শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।এই শিল্প স্থাপন হলে এর মাধ্যমে দৈনিক ৫০০টন পলিয়েস্টার ফিলামেন্ট ইয়ার্ন,স্ট্যাপল (পিএসএফ) ফাইবার ও পিইটি চিপস উৎপাদন হবে। আনুমানিক ১২৬০ কোটি টাকার এ প্রকল্পে ১ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে।
এছাড়াও মহেশখালী অর্থনৈতিক অঞ্চলে এ টি কে গ্রুপের অপর প্রতিষ্ঠান সুপার পেট্রোকেমিক্যাল লিমিটেডকে ৪১০ একর এবং সামুদা কেমিক্যাল কমপ্লেক্সকে ১০০ একর জমি প্রদান করা হয়। ইতোমধ্যে তারা সেখানে শিল্প স্থাপনের কাজ শুরু করেছে।