.

আইএফসি করোনাকালে দরিদ্র দেশগুলোর ব্যবসা খাতে ৪ বিলিয়ন ডলার দিয়েছে

ঢাকা, ৩১ অক্টোবর, ২০২০ (বাসস) : ইন্টারন্যাশনাল ফাইনেন্স কর্পোরেশন (আইএফসি) বলেছে, তারা করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় সহায়তার জন্য দরিদ্রতম দেশগুলোর বেসরকারী খাতের ব্যবসায় এ পর্যন্ত ৪ বিলিয়ন ডলার দিয়েছে।
আইএফসি বিকাশমান বাজারে বেসরকারী খাতের ওপর গুরুত্ব প্রদানকারী বৃহত্তম বৈশ্বিক উন্নয়ন সংস্থা। এ সংস্থা মহামারীর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ বেসরকারী খাতের কোম্পানীগুলোকে সাহায্য করার জন্য দ্রুত অর্থায়নে ৮ বিলিয়ন ডলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আইএফসি-র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
২০২০ সালের মার্চ মাসে আইএফসি বোর্ডে অনুমোদিত ৮ বিলিয়ন ডলারের দ্রুত অর্থায়নের মধ্যে ৪ বিলিয়ন ডলার ইতোমধ্যে প্রদান করা হয়েছে। এই অর্থের প্রায় অর্ধেক দরিদ্রতম ও নাজুক দেশগুলোর মানুষের উপকার করবে বলে আশা করা হচ্ছে। বাকী অর্থ অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশ এবং বিকাশমান বাজারগুলোতে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সহায়তা করবে।
বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রেসিডেন্ট ডেভিড মালপাস বলেন, উন্নয়নশীল দেশগুলোকে একটি সমন্বিত, টেকসই ও স্থিতিশীল পুনরুদ্ধার অর্জনে এবং চরম দারিদ্র্য রোধে সাহায্য করার জন্য বেসরকারী খাতকে সহায়তা প্রদান করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হবে।
তিনি আরও বলেন, আইএফসি’র দ্রুত কোভিড-১৯ আর্থিক সুবিধা প্রদান করে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে কর্পোরেট ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকদের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ সরবরাহ করা, যা কার্যকরী মূলধন সরবরাহ করবে, চাকরি ক্ষেত্রে সহায়তা এবং বাণিজ্য সুবিধা দিবে।
আইএফসি’র বোর্ড গত মার্চ মাসে প্রাদুর্ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ কোম্পানীগুলোকে সহায়তা করতে ৮ বিলিয়ন ডলার অর্থায়নের অনুমোদন দিয়েছে। আইএফসি ইতোমধ্যে ব্যবসা-অর্থায়নের আওতায় বরাদ্দকৃত ২ বিলিয়ন ডলার প্রদান করেছে।
এই সহায়তা ব্যবসা খাতে তারল্য বজায় রাখতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাহায্য করছে, যারা ব্যবসা বিশেষ করে কর্মসংস্থানের প্রধান উৎস ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পগুলোর (এমএসএমই) ওপর নির্ভরশীল।
আইএফসি’র কার্যনির্বাহী ভাইস-প্রেসিডেন্ট এবং চিফ অপারেটিং অফিসার স্টিফানি ভন ফ্রেডবুর্গ বলেছেন, চাকরি রক্ষা ও স্বল্পমেয়াদী ক্ষতি রোধে আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং রিয়েল সেক্টর ক্লায়েন্টদের তাৎক্ষণিক তারল্য সরবরাহ করার জন্য আইএফসির দ্রুত কোভিড-১৯ সুবিধাটি প্রণয়ন করা হয়েছিল।
স্টিফানি আরও বলেন, বেসরকারী খাতের গ্রাহকদের সহায়তা প্রদান ও হস্তক্ষেপ করে আমরা পুনরায় দীর্ঘমেয়াদে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করার আশা করছি। এতে কোভিড-১৯ কেটে যাওয়ার পরে আরও উন্নত, আরও স্থিতিশীল ও টেকসই ভবিষ্যতের পথ সুগম হবে।
আইএফসি এই সুবিধার অধীনে অতিরিক্ত ২ বিলিয়ন ডলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এই অর্থায়ন স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীদের সহায়তা করা থেকে শুরু করে ক্ষতিগ্রস্থ পর্যটন খাতকে সাহায্য করা, ব্যবসা সচল রাখার মাধ্যমে চাকরি বাঁচানোসহ বিভিন্ন উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হচ্ছে। বেসরকারী খাতের অংশীদারদের কাছ থেকে এই গ্রাহকদের জন্য আরও ৬ শ’ ২৩ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করা হয়েছে।

Go to Source
November 1, 2020
5:01 AM