কাশ্মীরিদের স্বাধীনতার সুযোগ এসেছে: ইমরান খান

--- নিবন্ধ ভাল লাগলে লাইক দিতে ভুলবেন না ---

ভারতের সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মীরে যে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে তার সম্পর্কে সোমবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ভাষণের শুরুতে ইমরান খান বলেন, আমি আজ শুধু কাশ্মীর নিয়েই কথা বলব। কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি কী? আমরা এ পর্যন্ত সংকট নিরসনে কী কী উদ্যোগ নিয়েছি।
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অহংকার ও ভুলের কারণে কাশ্মীরিদের স্বাধীনতার ঐতিহাসিক সুযোগ এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় চলে এসেছে। এ জন্য আমাদের জাতিগত ঐক্য ও আস্থার পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে।

ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে ভারতের সঙ্গে আলোচনা করতে চেয়েছেন দাবি করে পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক্ষমতায় আসার পরই আমি ঘোষণা করেছি, ভারত যদি সম্পর্কোন্নয়নে এক কদম এগিয়ে আসে, তাহলে আমরা দু’কদম এগিয়ে যাব। কাশ্মীরের বিষয়েও আমরা আলোচনার কথা বলেছি। কিন্তু ভারত শুরু থেকেই আমাদের ওপর সন্ত্রাসবাদেরও অপবাদ আরোপ করছে।

জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে ইমরান খান বলেন, ৫ আগস্ট কাশ্মীরকে গোটা বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করে মোদি সরকার বিশ্বকে এ বার্তা দিয়েছে যে, ভারত শুধু হিন্দুদের। বিজেপি ও আরএসএস এ মতাদর্শ নিয়ে কাজ করছে। নরেন্দ্র মোদিও আরএসএসের সদস্য ছিলেন। মুসলিম বিদ্বেষ নিয়েই তারা পরিকল্পিতভাবে কাজ করছে।

ইমরান খান বলেন, কাশ্মীর নিয়ে অহংকারবশত মোদি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা যে একটি ঐতিহাসিক ভুল, সময়ই তা প্রমাণ করবে। তার এমন ভুলে কাশ্মীরি জনগণের স্বাধীনতার সুযোগ এসেছে।


--- নিবন্ধ ভাল লাগলে লাইক দিতে ভুলবেন না ---
  •   
  •