অবৈধ খনি অনুসন্ধানকারীরা আমাজানের দুই আদিবাসীকে হত্যা করেছে

রিও ডি জেনিরো, ২৭ জুন, ২০২০ (বাসস ডেস্ক) : ব্রাজিলের আমাজানে অবৈধ স্বর্ণ খনির লোকরা আদিবাসী ইয়ানোমামি গোত্রের ২ জনকে হত্যা করেছে।
একটি মানবাধিকার গ্রুপ শুক্রবার এ কথা জানিয়ে সতর্ক করে বলেছে,এই ঘটনা “ চক্রাকারে সহিংসতা” বাড়াতে পারে।
মুখমন্ডলে পেইন্ট ও ছিদ্রযুক্ত জটিল অলংকরণের জন্য পরিচিত এই আদিবাসীরা ২০ শতকের মাঝামাঝি পর্যন্ত গোটা বিশ্বের কাছে অজানা ছিল। এদের বেশীরভাগই আমাজান রেইন ফরেস্টের গভীরে বসবাস করে।
জুনের প্রথমদিকে তাদের গুলি করে হত্যা করা হয়, তবে এই রিপোর্ট উত্তরাঞ্চলীয় রোরাইমা রাজ্যের পুলিশের কাছে পৌঁছেছে মাত্র চলতি সপ্তাহে। যখন ইয়ানোমামি গোত্রের এক লোক তার স্ত্রীকে নিয়ে রাজ্যের রাজধানী বোয়া ভিস্তার এক হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসে, তারাই কর্তৃপক্ষকে এই ঘটনা জানায়।
হুটুকারা ইয়ানোমামি এসোসিয়েশন (এইচএওয়াই) এ কথা জানায়।
গত আশির দশক থেকে খনি মাফিয়ারা এ অঞ্চলে প্রথমে কিছু খাবার ও উপহার সামগ্রী দিয়ে ইয়ানোমামিদের ভূমি দখল শুরু করে, পরে কোন বিনিময় ছাড়াই ইয়ানোমামিদের জমি দখল করা হয়, ফলে শুরু হয় সংঘাত।
মানবাধিকার গ্রুপ বলেছে, “আমরা উদ্বিগ্ন যে, এই হত্যাকান্ড ইয়ানোমামিদের মধ্যে প্রতিশোধ স্পৃহা বাড়িয়ে দিতে পারে ,এতে চক্রাকারে সহিংসতার বাড়তে এবং দীর্ঘস্থায়ী পারে।”