.

পদত্যাগ করলেন কিরগিজস্তানের প্রধানমন্ত্রী

বিশকেক (কিরগিজস্তান), ৭ অক্টোবর, ২০২০ (বাসস ডেস্ক): কিরগিজস্তানের প্রধানমন্ত্রী কুবাতবেক বরোনভ পদত্যাগ করেছেন। নির্বাচন পরবর্তী ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে মঙ্গলবার তিনি পদত্যাগ করেন।
প্রেসিডেন্টের ঘনিষ্ঠ বরোনভ’র স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন সাদির জাপারভ। জাতীয়তাবাদী এই রাজনীতিবিদকে একদিন আগে বিক্ষোভকারীরা জেল থেকে মুক্ত করে আনে।
পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট কেনাবেচার অভিযোগে দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়। এ সময়ে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে একজন নিহত এবং প্রায় ৭শ’ লোক আহত হয়।
এদিকে কিরগিজস্তানের কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন পার্লামেন্ট নির্বাচনের ফলাফল বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে।
এর আগে রাজধানী বিশকেকে ব্যাপক বিক্ষোভকালে প্রতিবাদকারীরা সরকারি ভবনসমূহ দখলে নেয় এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট আলমাজবেক আতামবায়েভসহ শীর্ষস্থানীয় রাজনীতিবিদদের কারামুক্ত করে।
অপরদিকে পার্লামেন্টারি প্রেস সার্ভিস বলেছে, বিক্ষোভকারীরা পার্লামেন্ট ভবন দখলে নেয়ার পর একটি হোটেলে ব্যতিক্রমী এক বৈঠকের মাধ্যমে জাপারভকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করা হয়।
রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ সাংবাদিকদের বলেছেন, কিরগিজস্তানে বিক্ষোভের কারণে ক্রেমলিন খুবই উদ্বিগ্ন।
এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র উভয়পক্ষকে সংযত ও শান্তিপূর্ণ উপায়ে সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানিয়েছে।
এদিকে মঙ্গলবার রাজধানী বিশকেক তুলনামূলক শান্ত রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে প্রেসিডেন্টের কার্যালয় বিক্ষোভকারীদের দখলে রয়েছে। প্রেসিডেন্ট রাজধানীতেই রয়েছেন বলে তার কার্যালয় সূত্রে বলা হয়েছে। অবশ্য তিনি প্রকাশ্যে আসছেন না।
অন্যদিকে, বেশকিছু সংখ্যক রাজনৈতিক দল বলেছে, দেশে স্থিতিশীলতা ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে তারা সমন্বয় পরিষদ গঠন করেছে। তারা সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে প্রেসিডেন্টের ব্যর্থতার সমালোচনা করে।
কিন্তু নতুন প্রধানমন্ত্রীর দল সমন্বয় পরিষদকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।
এদিকে রুশপন্থী প্রেসিডেন্ট সরোনবে জিনবিকভ জোর দিয়ে বলেছেন, পরিস্থিতি তার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। মঙ্গলবার কয়েকটি দল ক্ষমতা দখলের উদ্যোগ নিয়েছিল বলে তিনি অভিযোগ করেন।
রাজধানীতে অধিকাংশ ব্যাংক, দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রয়েছে। লুটপাটের ভয়ে অনেক দোকানী তাদের মালামাল সরিয়ে নিচ্ছে।

Go to Source
October 7, 2020
3:00 PM