.

প্রথম বিদেশী নেতা হিসেবে জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে আলাপ করেছেন জো বাইডেন

অটোয়া, ২৩ জানুয়ারি, ২০২১ (বাসস ডেস্ক) : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার প্রথম বিদেশী নেতা হিসেবে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন এবং সামনের মাসে এ নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন। অটোয়া ও ওয়াশিংটন পৃথক বিবৃতিতে এ কথা জানায়।
কানাডা জানায়, ৩০ মিনিটব্যাপী এই আলাপকালে দুই নেতা করোনাভাইরাস মহামারি থেকে সব বিষয় নিয়ে কথা বলেন, এরমধ্যে গত মার্চ থেকে যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা সীমান্ত বন্ধ থাকা এবং পরিবেশ সুরক্ষার বিষয়ও স্থান পায়।
মেক্সিকান প্রেসিডেন্ট আন্ড্রেজ মানুয়েল লোপেজ অবরাদর টুইটারে বলেছেন, শুক্রবার একইভাবে তার সঙ্গে টেলিফোন আলাপে বাইডেন কোভিড-১৯ এবং অভিবাসনসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।
ট্রুডো ও বাইডেন পুনরায় অতি শিগগিরই আলোচনার পরিকল্পনা করেছেন, কানাডার পক্ষে ভার্চুয়ালি অথবা সরাসরি আলোপনার পথ উন্মুক্ত থাকবে, তবে হোয়াইট হাউস বলেছে, “দুই নেতা আগামী মাসেই পুনরায় আলোচনায় বসতে সম্মত হয়েছেন।”
কানাডার বিবৃতিতে বলা হয়, “আলোচনায় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো এগিয়ে নিয়ে যাবে কানাডা এবং যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ এবং গভীর সম্পর্কের নবায়ন হবে।”
তবে এই আলোচনার নির্দিষ্ট তারিখ অটোয়া ও ওয়াশিংটন কেউই নিশ্চিত করেনি।
উভয় দেশের নেতারা বাইডেনের কিস্টোন এক্সএল পাইপলাইন বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা করেছেন, পরিবেশবাদীরা এই প্রকল্পের কঠোর সমালোচনা করেছেন তবে অটোয়া এই প্রকল্পে সমর্থন দিয়ে আসছে।
গত বুধবার প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহনের পর নির্বাহী আদেশে বাইডেন এই তেল পাইপলাইন প্রকল্প বাতিল করেন। ২০১০ সালে এই পাইপলাইন প্রকল্প শুরু হয়।
জাস্টিন ট্রুডো এর আগে বলেছেন, উপমহাদেশীয় জ্বালানি ও কর্মসংস্থানের নিরাপত্তার জন্য “এটি আমাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প”। এই প্রকল্প বাতিল হওয়ায় শুক্রবার তিনি হতাশা ব্যক্ত করেন।
ট্রুডোর অফিস এক বিবৃতিতে জানায়, “কিস্টোন এক্সএল পাইপলাইন বাতিলের সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে হতাশা ব্যক্ত করেছেন।” তবে এতে আরো বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী অর্থনৈতিক ও জ্বালানি নিরাপত্তা সুবিধা পেতে দ্বিপক্ষীয় জ্বালানি সম্পর্কের প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন।”
১২১০ মাইল (১,৯৪৭ কিলোমিটার) দৈর্ঘেও এই পাইপলাইনের মাধ্যমে ২০২৩ সালে আলবাট্রা থেকে নেবাস্কায় দৈনিক ৮ লাখ ৩০ হাজার ব্যারেল তেল সরবরাহ শুরু করার কথা ছিল, সেখান থেকে বিদ্যমান পাইপলাইনের মাধ্যমে তেল উপকূলীয় টেক্সাসের রিফাইরারিতে সরবরাহ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছিল।

Go to Source
January 23, 2021
6:00 PM