.

সৌদির পূর্বাঞ্চলীয় বন্দরে ড্রোন ও তেল কোম্পানি আরামকোর স্থাপনায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা : জ্বালানি মন্ত্রণালয়

রিয়াদ, ৮ মার্চ, ২০২১ (বাসস ডেস্ক): সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় একটি তেল বন্দরে রোববার ড্রোন এবং বৃহৎ জ্বালানি কোম্পানি আরামকোর স্থাপনা লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। জ্বালানি মন্ত্রণালয় একথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।
সরকারি সৌদি প্রেস এজেন্সির এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় জানায়, ‘বিশ্বের বৃহত্তম তেল বন্দরগুলোর অন্যতম সৌদির পূর্বাঞ্চলীয় রাস তানুরা বন্দরের পেট্রোলিয়াম ট্যাঙ্ক এলাকাগুলোর একটিতে আজ সকালে সমুদ্র থেকে ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।’
বিবৃতিতে আরো বলা হয়, রোববার সন্ধ্যার দিকে ‘ধাহরান নগরীতে সৌদি আরামকো তেল কোম্পানির আবাসিক এলাকার কাছে একটি ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এ কোম্পানির হাজার হাজার কর্মচারী এবং তাদের পরিবার এ এলাকায় বসবাস করে।’
পরে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায় যে সমুদ্র থেকে চালানো ড্রোন হামলার লক্ষ্যস্থানে আঘাত হানার আগেই তা ঠেকিয়ে দেয়া হয় এবং ধাহরানে আরামকোর স্থাপনা লক্ষ্য করে চালানো ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলাও ভূপাতিত করা হয়।’
বিবৃতিতে বলা হয়, ক্ষেপণাস্ত্রের স্্রাপ্নেল বেসামরিক আবাসিক এলাকার কাছে আঘাত হানে।
প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, এ হামলার প্রধান লক্ষ্য বিশ্বের অর্থনীতি, তেল সরবরাহ এবং বৈশ্বিক জ্বালানি নিরাপত্তা নস্যাৎ করা।
এ হামলায় কেউ হতাহত বা কোন ক্ষতি হয়েছে কি-না এবং কারা এ হামলায় জড়িত সে ব্যাপারে বিবৃতিতে কিছু বলা হয়নি।
তবে ইয়ামেনের হুতি বিদ্রোহীরা টুইটারে দাবি করে বলেছে, তারা ধাহরানে পার্শ্ববর্তী দাম্মাম এলাকার রাস তানুরা ও সামরিক স্থাপনা লক্ষ্য করে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

Go to Source
March 8, 2021
12:03 PM